akkhep - usuf islam ( স্বপ্নলেখা কাব্যগ্রন্থ ) - bangla new kobita 2020 - bangla kobita.

    

                    " আক্ষেপ "
                    " ইউসুফ ইসলাম "
  আমি হারাএ যাবো অজানা অচেনা দুর-প্রান্তরে
  গাছের ছায়া ঘেরা ছন্নছাড়া মেঠো পথে তব-সনে চলনে
  অথবা কোনো এক চাঁদনী পশর রাতে হেমন্তের কোলে বসি
  জোৎস্যনার আলোয় ভীজতে দুজনাতে
  আর রহিবনা তব আসে চেয়ে-চেয়ে-চাতকীর বেসে!
  আমি হারাএ যাবো দুর-হতে-বহু-দুরে!
ঐ-মেঘের ভেলায় চড়ে তব দ্বারে স্বপ্নের পাতা খুলে
  আখি জ্বলে ভীজাএ মুখ মনোমন্দিরে আবেগের বসে
  ফের যদি কাদি উঠি শুন্য সজ্জ্যা মিথ্যে স্বপন দেখি!
  হীতে ভয় কি তব? দিলাম আশীস, আর আসবোনা ফিরি
  সব-কে ঘিরে বলব না ভালবাসি তারে। আছ কি তুমি তোমাদের মাঝে ?
  আদো পাইনি দেখা তার, শুধু লাঞ্ছনা আর লাঞ্ছনা পাইনু সবার।
  আজ তায় ঘোর তিক্ত বিষজ্বালা মনে টিটকিরি দিয়ে হা-হা হেসে উঠে
  আর সে হাসি আছড়ে পড়েরে মনোমন্দিরে মহা সাইক্লোনে টুটি
  অথচ আমি ভালবেসেছিনু লোভিতে ভালবাসা এই এতোটুকুই শুধু।
  আমি পেয়েছি-বহু-পেয়েছি, তবে ভালবাসা নয় শুধুই লাঞ্ছনা
  কিন্তু আজো ভালবাসি-বেসে যাব, তবে তব সম্মুখে আর আসবোনা ফিরে
  আমি হারাএ যাব দুর-হতে-দুরে আজ নয়তো কাল চলেই যাবো
  যেতে হবে এক রাস দুঃখ ব্যথা বুকে-বহি না ফেরার দেশে।
  তুমি মুক্ত পাখি সদাই রহিলে মোর নাগাল-বাহির
  আদো দিলে না তো ধরা মনের কুটীর-পিঞ্জরে 
  তব দ্বারে সকলের ঠাই হলেও হতে পারে
  শুধু আমার তরে এই এতো টুকো জায়গা পাইনি তব পাশে।
  আমি যে, তব তরে সাত সমুদ্র তের নদী পেরতে পারব না
  পারব না তোমার জন্য জীবন দিতে,
  তোমায় নিয়ে মুক্ত আকাশে উড়েতে পারব না তোমার কথায়
  নরকের যন্ত্রনা সহ করিবার সাধ্য আমার নেই
  আমি আমার কষ্টকে আড়াল করে তোমার জন্য হাসতে পারি
  তবে তোমাকে ভোলাতে মিথ্যের আস্রয় কেন নেব অনেকের মতো?
  সময় যে ফুরাএ এলো স্বপ্ন শুধু স্বপ্নই রয়ে গেলো!
  তবে তোমায় নিয়ে স্বপ্নের কাব্য রচনা করছি .......।
  সে কাব্যে আমার স্বপ্ন শুধু স্বপ্নের মাঝেই রয়ে গেলো অবহেলাভরে
  অথচ আমি আদো তব প্রতিক্ষায় প্রতিক্ষিত তবে তোমা-হতে বহু দুরে।
  আমি কেঁদেছি বহু বার বর্ষার দিনে তিপ্তি করে
  কেননা তখন চোখের অস্রুজ্বল বৃষ্টির সনে মিসে একাকার হয়ে যায়
  দেখেও দেখেনা কেহ । এ যেন,
  পাহাড়ের চাপা কান্নায় বুক চিড়ে জ্বল গড়ায়
  আর লোকে দেখে বলে আহাঃ ঝর্ণাধারা কতই না সুন্দর সোভা ময়
  বুক ফাটা সেই আহত হৃদয়ের কান্না সে হীনা আর কে বুঝবে?
  যার নিয়তির খেলা এমন নয় ।
  আর তুমিই বা কেমন করে বুঝবে?
  আশো তো শুধু স্বপ্নের দ্বার খুলে মোর অন্দরে
  আর তোমাকে খুজে ফিরি আমি জনেজনে পথেঘাটে বাস্তব ভুবনে।
  তোমাকে পাওয়ার আসে বেধেছিল বাসা এ-মনে কতো না স্বপন এসে
  তা-সবি ধুলায় ধূসর হয়ে রয়েছে বিয়ে মোর অন্দরে
  চূর্ণ হীনা নাহি কিছু আর অবশেষ, পূর্ণ ল-ভ মোর মনোমন্দির
  তায় কেমন করি খুজব বলো কতো কাল ধরি !
  তুমি জানো না ক কতো দিনের পর দিন মাস-বছর এলো গেলো
  কিন্তু আদো পেলাম না খুজে স্বপ্ন হীনা বাস্তবে
  তোমা-হতে বহু দুরে না পাওয়ার ব্যথা বুকে ধরে আমি হারাএ যাবো
  আর আসব না ফিরে তব খোজে ত্যক্তবিরক্ত করিতে  সবকে।
  হতেও পারে কালের আবর্তে সাহারার বুকে গাছের সয়লাভ হবে
  কিন্তু এ-মনের ব্যথা-বেদনার কভু কি অবসান হবে ?
      
                          ( স্বপ্নলেখা পদ্য কাব্যগ্রন্থ )

Post a Comment

0 Comments